1. abutalha6256@gmail.com : abdul kadir : abdul kadir
  2. abutalha625616@gmail.com : abu talha : abu talha
  3. asadkanaighat@gmail.com : Asad Ahmed : Asad Ahmed
  4. izharehaq24@gmail.com : mzakir :
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন

সিরিজ নিশ্চিত হলেও বিলাসিতা চায় না বাংলাদেশ

রিপোর্টার নাম:
  • প্রকাশটাইম: মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১

এক ম্যাচ বাকি থাকতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে ক্যারিবিয়ানদের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল একাদশে পরিবর্তনের আভাস দিয়েছিলেন। সিরিজ যেহেতু নিশ্চিত হয়েই গেছে ফলে তৃতীয় ওয়ানডেতে বেঞ্চে থাকা ক্রিকেটারদের সুযোগ দেওয়ার কথা বলেছিলেন তামিম। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও পরিবর্তনের আভাস দিলেন। তবে পরিবর্তনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যে বিলাসী হবে না এটাও বলেছেন পাপন। জয়ের ছক কষেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ বলেছেন বিসিবি বস।

বাংলাদেশের ওয়ানডে সুপার লিগ শুরু হয়েছে এই সিরিজ দিয়ে। ফলে যতোটা সম্ভব পয়েন্ট তুলে নেওয়ার চিন্তা পাপনের। তাছাড়া পরবর্তী সিরিজগুলোর বেশিরভাগই বিদেশের মাটিতে, শক্তিশালী দলের বিপক্ষে। আর বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের পরিসংখ্যান বরাবরই খারাপ। সেটাও ভাববার বিষয় বলেছেন পাপন।

শনিবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বিসিবি বস বলছিলেন, একাদশে পরিবর্তন আসতেই পারে, কিš আমরা এমন পরিবর্তন আনতে চাই না যাতে করে আমাদের সমস্যা হয়। এই খেলা দিয়ে কিš ওয়ানডে চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়ে গেল। দ্ইু ওয়ানডে জিতে আমরা ২০ পয়েন্ট পেয়েছি। এই ম্যাচগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কোনটিকেই ছোট করে দেখার কোনো সুযোগ নেই। তাহলে টেস্ট, ওয়ানডে চ্যাম্পিয়নশিপ বা বিশ্বকাপ খেলতে গেলে আমাদের সমস্যায় পড়তে হতে পারে।
পাপন যোগ করেন, আর একটা কারণেও এই সিরিজটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের আগামীতে যতো সিরিজ আছে তার বেশিরভাগই বিদেশের মাটিতে শক্তিশালী দলের বিপক্ষে। আমরা বাংলাদেশের মাটিতে ভালো খেললেও বিদেশে গিয়ে কিš ভালো খেলতে পারি না এখনো। সিরিজ জিতেছি মাত্র দুটি। কাজেই আমাদের এই খেলাগুলো প্রতিটাই গুরুত্বপূর্ণ, আমাদের জিততেই হবে।

পাপনের এসব কথায় মন খারাপ হতেই পারে সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম, আফিফ হোসেন ধ্রুবদের। প্রতিজনই সেরা একাদশে খেলার দাবি রাখেন। কিš টিম কম্বিনেশনের কারণে বেঞ্চে বসে থাকতে হয়েছে এদের।

উল্লেখ্য, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে ৬ উইকেটে জিতেছিল বাংলাদেশ, দ্বিতীয়টিতে ৭ উইকেটে। আগামী সোমবার চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের শেষ ম্যাচটা।
এদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অর্জনের কিছুই ছিল না। দুই ম্যাচই বাংলাদেশ জিতেছে সব বিভাগে এগিয়ে থেকে। অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের গল্পটা ঠিক এর উল্টো। তবু শূন্য হাতে ওয়ানডে সিরিজ শেষ করতে চাইবে না সফরকারী দল। ঢাকায় প্রথম দুই ম্যাচ হেরে আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের ২০ পয়েন্ট হারিয়েছে ক্যারিবীয়রা। চট্টগ্রামে জিতে অন্তত ১০ পয়েন্ট পেতে চায় ফিল সিমন্সের দল।

আজ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে এবং প্রথম টেস্টের জন্য চট্টগ্রামে পৌঁছেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেখানে পৌঁছে তরুণ দলটিকে ১০ পয়েন্টের জন্য লড়ার তাগিদ দিলেন কোচ সিমন্স, ‘আমরা এখানে ৩০ পয়েন্টের জন্য এসেছি। কিš আমাদের এখনো ১০ পয়েন্ট নেওয়ার সুযোগ আছে। সেই প্রতিযোগিতাই আমরা করব।’

এটা পেতে হলে ব্যাটিংয়ে বড় উন্নতি করতে হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে। ঢাকায় দুই ম্যাচে একবারও ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান দেড় শ ছাড়ায়নি। চট্টগ্রামে আরও কিছু রান করতে পারলে বোলাররা বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের বেঁধে ফেলতে পারবেন, এমন আশা সিমন্সের, ‘উন্নতি দরকার আমাদের। প্রথম ম্যাচে ১২২ থেকে দ্বিতীয় ম্যাচে আমরা ১৪৮-এ এসেছি। আমাদের এখন ২৩০ থেকে ২৫০ রান করতে হবে। তাহলেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। বোলাররা লড়াইয়ের সুযোগ পাবে। তবে ১০ পয়েন্টই মূল লক্ষ্য।’

ওয়ানডের দুর্দশার আড়ালে দুই সপ্তাহ ধরে নিজেদের প্র¯ত করছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট দল। ওয়ানডের তুলনায় টেস্ট দল কাগজে-কলমে শক্তিশালী। টেস্টের মূল বোলিং আক্রমণ নিয়েই বাংলাদেশে এসেছে ক্যারিবীয়রা। ৩ ফেব্রুয়ারির প্রথম টেস্টের আগে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে টেস্ট দলের ক্রিকেটারদের দেখার অপেক্ষায় আছেন সিমন্স, ‘ওয়ানডে দলের সঙ্গে পাঁচজন আছে, যারা টেস্ট দলেও আছে। এ ছাড়া বাকি দশজন কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে। প্র¯তি ম্যাচ দেখে বুঝতে হবে তারা কোন অবস্থায় আছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
copyright 2020:
Theme Customized BY MD MARUF ZAKIR