1. abutalharayhan@gmail.com : Abu Talha Rayhan : Abu Talha Rayhan
  2. asadkanaighat@gmail.com : Asad kg : Asad kg
  3. junayedshamsi30@gmail.com : Mohammad Junayed Shamsi : Mohammad Junayed Shamsi
  4. sufianhamidi40@gmail.com : Sufian Hamidi : Sufian Hamidi
  5. izharehaque0@gmail.com : ইজহারে হক ডেস্ক: :
  6. rashidahmed25385@gmail.com : Rashid Ahmad : Rashid Ahmad
  7. sharifuddin000000@gmail.com : Sharif Uddin : Sharif Uddin
  8. Yeahyeasohid286026@gmail.com : Yeahyea Sohid : Yeahyea Sohid
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন

উপসম্পাদকীয়…

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২০

 

দারুল উলুম দেওবন্দ কেবল একটা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নাম না, একটা বিপ্লবের নাম। যে বিপ্লবের মাধ্যমে আজাদ হয়েছিলো উপমহাদেশ। যে বিপ্লবের মাধ্যমে ইংরেজ বাধ্য হয়েছিল উপমহাদেশ ত্যাগ করতে। যে বিপ্লবের মাধ্যমে গোলামীর জিঞ্জীর ছিড়ে আমরা পেয়েছিলাম আজাদ হিন্দ।

আর দেওবন্দিয়াত কোনো ভৌগোলিক পরিভাষা বা জাতিগত পরিচয়ের নাম নয়; দিওবন্দিয়াত একিটা চেতনার নাম, একটা ফিকরি বিপ্লবের নাম। যে ফিকরি বিপ্লবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্বয়ং নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। উপমহাদেশের মানুষকে দুই শতাব্দী ধরে ইসলামের সঠিক দিক নির্দেশনা দিয়ে আসছে দারুল উলুম দেওবন্দ। বাতিলকে বাতিল আর হককে হক অকপটে বলা শিখিয়েছে দারুল উলুম দেওবন্দ।

বিশ্বের যে কোনো পরিস্থিতিতে দারুল উলুম দেওবন্দ জাতিকে সঠিক দিক নির্দেশনা দিয়ে আসছে সূচনা থেকেই। দিনে দিনে
দারুল উলুম দেওবন্দ হয়ে ওঠেছে হকের মানদণ্ড। এজন্যই বাংলাদেশের উলামায়ে কেরাম নিজেকে হকপন্থী দাবি করতে গেলে দেওবন্দি পরিচয় দিয়ে থাকেন। বাংলাদেশের জন্মের পর থেকে যেটা হয়েছে জাতীয় কোনো ইস্যুতে বাংলাদেশ দারুল উলুম দেওবন্দ এর দিক নির্দেশনা নিয়েই কথা বলেছে। সম্প্রতি সাদ সাহেব ইস্যুতেও বাংলাদেশের উলামায়ে কেরাম দারুল উলুম দেওবন্দের এক বিবৃতিকে কেন্দ্র করে এদেশের মানুষকে সাদ সাহেবের ব্যাপারে সতর্ক করেছেন। দারুল উলুম দেওবন্দ কথা বলার আগে বাংলাদেশের উলামায়ে কেরাম সাদ সাহেবের বয়ান শোনতে জটলা লেগে বসে থাকতেন বিশ্ব ইজতেমায়। দারুল উলুম দেওবন্দ সাদ সাহেবকে সতর্ক করার পরই বাংকাদেশের উলামায়ে কেরামের কাছে সাদ সাহেবের ভুলগুলো ধরা পড়ে। সুতরাং বুঝতেই পারছেন বাংলাদেশের যে কোনো ইস্যুতে দারুল উলুম দেওবন্দ কতোটা প্রাসঙ্গিক!

করোনা ভাইরাস বা কোভিড ১৯ মহামারি না জৈবাস্ত্র! এইটা এখিনো ধোঁয়াশা। যেটাই হোক মানুষ মারা যাচ্ছে গণহারে এইটাই মূল কথা। করোনা ভাইরাস বা কোভিড ১৯ থেকে মানুষ রক্ষা পেতে কী করতে হবে? এর ডাক্তারি পরামর্শ তো ডাক্তাররাই দিবেন! ডাক্তাররা বলেছেন এর ভ্যাক্সিন আবিষ্কার হওয়া পর্যন্ত এইটা থেকে বাঁচার সবচেয়ে কার্যকরী পথ হচ্ছে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা। জনসমাগম এড়িয়ে চলা। ডাক্তারদের এই পরামর্শ মানতে মুসলমানরা একটা সমস্যার সম্মুখীন।

সমস্যা হচ্ছে, জনসমাগম এড়িয়ে চলতে গেলে মসজিদে তো যাওয়া যাবে না, যেহেতু সেখানে প্রচুর পরিমাণে জনসমাগম হয়ে থাকে। আর জামাতে নামাজ পড়তে গেলে অবশ্যই শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা যাবে না! এমতাবস্থায় মুসলমানরা কী করবে? জামাতে নামাজে যাবে না ডাক্তারদের কথা মানতে মসজিদে যাওয়া আপাতত বন্ধ রাখবে? এর দিক নির্দেশনা দিবেন উলামায়ে কেরাম। যেহেতু এইটা কেবলই ধর্মীয় বিষয় না, আর একান্ত কোনো গোষ্ঠীর বিষয়ও না ; বরং একটা বৈশ্বিক বিষয় এবং এর সাথে জড়িত আছে ডাক্তারি বিষয়ও, তাই এই নিয়ে দারুল উলুম দেওবন্দ এর দিক নির্দেশনা বাংলাদেশে প্রাসঙ্গিক হওয়ার কথা ছিল। পূর্বের ন্যায় উচিৎ ছিলো দারুল উলুম দেওবন্দ এর অনুসরণ করা; যেহেতু বাংলাদেশ সবকিছু বিবেচনায় সঠিম ফতোয়া দেওয়ার মতো বোর্ড বা ব্যাক্তি নেই। কেন নেই? সেটা না হয় গোপনই থাক।

কিন্তু এই ইস্যুতে হঠাৎ করেই দারুল উলুম দেওবন্দ অপ্রাসঙ্গিক হয়ে গেলো বাংলাদেশে। দারুল উলুম দেওবন্দের ফতোয়া যেন কোনো ফতোয়াই না বাংলাদেশের মুফতিদের কাছে! অথচ এই বাংলাদেশের মুফতিরা একটা তালাকের ফতোয়ার জন্যও দারুল উলুম দেওবন্দের দিকে চেয়ে থাকতো এক সময়। সাদ সাহেব ইস্যুতে তো দারুল উলুম দেওবন্দ ছাড়া কথাই বলতে পারতেন না এই উলামায়ে কেরাম! এই এক বছর দুই বছরের ব্যবধানে বাংলাদেশের উলামায়ে কেরাম কি এতোটাই যোগ্য হয়ে গেলেন যে আজ দারুল উলুম দেওবন্দ অপ্রাসঙ্গিক হয়ে গেলো?

প্রশ্নগুলোর জবাব আপনি খুঁজেন। আমার কাছে জবাব আছে। সবকিছু জানলেও বলতে হয় না।

তবে একটা কথা! এই যে বাংলাদেশের উলামায়ে কেরাম একটা জাতীয় বিষয়ে ফয়সালা দিতে গিয়ে জাতিকে বিভ্রান্ত করছেন, দ্বিমুখী নীতি প্রদর্শন করছেন, একেক লাইভে এসে একে ধরনের কথা বলছেন, সকালের কথা বিকেলে ঠিক রাখতে পারছেন না, এই কারণে এই জাতির আস্থা আপনাদের উপর থেকে ওঠে গেলে আগামী কিন্তু ভয়ংকর হবে৷

#বাসায়_থাকুন

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Izharehaq.com
Theme Customized BY Md Maruf Zakir