1. abutalharayhan@gmail.com : Abu Talha Rayhan : Abu Talha Rayhan
  2. asadkanaighat@gmail.com : Asad kg : Asad kg
  3. dulaljanna095@gmail.com : sohidul islam : sohidul islam
  4. abkfaruq@gmail.com : abdul kadir faruk : abdul kadir faruk
  5. junayedshamsi30@gmail.com : Mohammad Junayed Shamsi : Mohammad Junayed Shamsi
  6. sufianhamidi40@gmail.com : Sufian Hamidi : Sufian Hamidi
  7. izharehaque0@gmail.com : ইজহারে হক ডেস্ক: :
  8. rashidahmed25385@gmail.com : Rashid Ahmad : Rashid Ahmad
  9. sharifuddin000000@gmail.com : Sharif Uddin : Sharif Uddin
  10. Yeahyeasohid286026@gmail.com : Yeahyea Sohid : Yeahyea Sohid
  11. zahidnahid68@gmail.com : Hafiz Zahid : Hafiz Zahid
শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন

সুখের সংসার

আবদুল কাদির ফারুক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০

আমাতুল্লাহ, গত কাল সে স্বামীর বাড়ি থেকে নিজ বাপের বাড়িতে এসেছে। বহুদিন পর এবার সে বাপের বাড়িতে পা রেখেছে। সঙ্গে তার স্বামী ও একমাত্র ননদ। ওর বিয়ের আট মাস চলছে। লকডাউনের সময় ছোট্ট পরিসরে ওর বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে তার বাড়িতে বেশ আসা-যাওয়া হয় না। আর বর্তমানে সে গর্ভবতী। সে তার অনাগত সন্তানের জন্য খুবই বিব্রতকর অবস্থায় আছে। না জানি কোন সময় কী হয়ে যায়। দু’এক মাস পর সে মা হবে। এজন্য সবসময় দোয়া-দরুদ নামায- তিলাওয়াত নিয়ে ব্যস্ত। সে এখন খুব সতর্কতার সঙ্গে উঠা বসা করছে। নতুবা কোনো সমস্যা হয়ে যেতে পারে। সবাই তাকে সতর্কতার সাথে চলতে জোর তাগিদ দিয়েছেন।




স্বামীর সংসার নিয়ে সে খুবই সুখে আছে।
শশুড়ালয় তাকে খুব মহব্বত করে। আজ পর্যন্ত তাকে দুঃখের ছোঁয়া স্পর্শ করেছে বলে তার মনে হয় না। হাসিখুশির মধ্য দিয়ে প্রতিনিয়ত তার দিন অতিবাহিত হচ্ছে। আমাতুল্লার মা-বাবা, ভাইবোন, আত্মীয়স্বজন তাকে সেখানে বিয়ে দিতে পেরে খুবই আনন্দিত। সবাই খুশিতে অভিভূত। তার ভবিষ্যৎ দিন ভালোভাবে চলুক এই প্রত্যাশা। এই আশা,আকাঙ্ক্ষা।




প্রথম দিন আমাতুল্লাহ গাড়ী থেকে নামতেই বড় ভাইয়ের সাক্ষাৎ হয়। মন ভরে বড় ভাইকে সালাম দেয়। বহুদিন পর ওর বড় ভাইয়ের সাথে সাক্ষাৎ হয়েছে।
কারণ তার বড় ভাই লেখাপড়া নিয়ে ব্যতিব্যস্ত থাকেন, তাই ওর সঙ্গে একটু কম দেখা সাক্ষাৎ হয়। ঘরে প্রবেশ করে মা-বাবা ও বাকি ভাইবোনের সঙ্গে দেখা করে। পর্যায়ক্রমে দাদা, দাদী বাড়ীর সবার মুলাকাত পায় সে। ছোটো ছোটো শিশুরা বলাবলি শুরু করছে, আপু এসেছে। আপু এসেছে। বাড়ীতে খুশির আমেজ শুরু হয়েছে। ভিন্নরকম এক স্বাদ অনুভব হচ্ছে । কেউ আমাতুল্লার আসার কথা শুনে দেখা করছে। কেউ তাকে দেখে বলছে, ওমা! আমাতুল্লার যে স্বাস্থ্য হয়েছে। কেউ বলছে ওমা, তুমিতো বড্ড সুন্দর হয়েছ! আর আসলেই বাস্তবে ও সুন্দরী। এভাবে ওর বাপের বাড়ির দিন অতিবাহিত হচ্ছে…




আজ বাদ মাগরিব। মা-ভাইবোন ও আমাতুল্লার একমাত্র ননদ, সবাই খাটের উপর বসে গল্প শুরু করেছে। পাশের রুম থেকে বড় ভাইও গল্পের আসরে অংশগ্রহণ করেছেন। সবাই মিলে গল্প করছে আর নানান জিনিস কড়মড় করে চিবিয়ে চিবিয়ে খাচ্ছে। সবশেষে চা খেয়ে আজকের মতো তাদের গল্পের আসরে শেষ করতে হলো। কারণ সালাতুল এশার আযান হয়েছে। সবাই নামাজের প্রস্তুতি গ্রহণ করে নামাজ আদায় করবে। আগামী কাল আমাতুল্লাহ ওর শাশুড়ির বাড়ী চলে যাবে। আর কবে আসবে, সে নিজেই জানে না।


নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Izharehaq.com
Theme Customized BY Md Maruf Zakir