1. abutalha6256@gmail.com : abdul kadir : abdul kadir
  2. abutalha625616@gmail.com : abu talha : abu talha
  3. asadkanaighat@gmail.com : Asad Ahmed : Asad Ahmed
  4. izharehaq24@gmail.com : mzakir :
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

মাও. মুহিব্বুল হক গাছবাড়ি: কীর্তিময় বৈশিষ্ট্যময় ঈর্ষণীয় জীবনের আলোকচ্ছটা

রিপোর্টার নাম:
  • প্রকাশটাইম: শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

মাওলানা মুখলিসুর রাহমান রাজাগঞ্জী

★ওহি বিজ্ঞানের পারদর্শী যিনি-উসতাযুল আসাতাযা ওয়াল মুহাদ্দিসিন হাজার হাজার ছাত্রের হৃদয়ের মণিকোঠায়স্থান দখলকারী জনপ্রিয় উস্তাদমাওলানা মুফতি মুহিব্বুল হক গাছবাড়ি সিলেট তথাবাংলাদেশের নির্বাচিত জ্যোতির্ময় তারকারাজির এক অনন্য নক্ষত্র;
যাকে মহান আল্লাহ তায়ালা ইলমি জ্ঞানের পাশাপাশি দেশের উলামা মাশায়েখের মধ্যে বিচক্ষণ বুদ্ধিদীপ্ত সুবিবেচনা ও বিচারিক নিপুণ সিদ্ধান্ত প্রদান ক্ষমতার দৌলত দ্বারা গৌরবান্বিত করেছেন।




★উলামানগরে যার জন্ম-১৯৪৫ ঈসায়ী ৬,ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার শাহজালাল রাহ,র আধ্যাত্মিক স্মৃতি বিজড়িত,পূণ্যভূমি সিলেট জেলার ও বাহরুল উলূম আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরীর স্মৃতিধন্য উলামানগর খ্যাত কানাইঘাট উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের গোয়ালজুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।




★সুযোগ্য মুখলিস আলেম পিতার ঔরষে জন্মলাভ-তাঁর পিতা হযরত মাওলানা ইসহাক রাহ ছিলেন সুনামধন্য আলেমে দ্বীন। উলামানগরে রয়েছে তাঁর বিপুল পরিচিতি ও খ্যাতিমান কীর্তির অনেক গল্প।
[প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে ছাফেলা ১ম বর্ষ থেকে আলিয়া ৪র্থ বর্ষ পর্যন্ত লেখাপড়া করেন নিজ এলাকার সুনামধন্য মাদ্রাসা গাছবাড়ি মাযাহিরুল উলূম কৌমি [আকুনি] মাদ্রাসায়।]




★আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরির শাগিরদ যিনি-
১৯৬৪- ঈ, সিলেটের শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান দারুল উলুম কানাইঘাটে ভর্তি হয়ে তথায় যুগশ্রেষ্ঠ উস্তাদ মন্ডলির কাছে আলিয়া ৫ম ও ৬ষ্ঠ ২ বছরকাল
মুখতাছারুল মাআনি,সুল্লামুল উলূম, মুসলিম শরিফ, তাফসিরে মাদারিক প্রভৃতি কিতাব অত্যন্ত সুনামের সহিত পড়ালেখার মধ্য দিয়ে আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরির শিষ্যত্ব লাভ করেন। [এরপর ১৯৬৫ ঈ, ছয়মাস ঢাকাউত্তর রানাপিং আরবিয়া হোসাইনিয়া মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ কৌমি বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম হাটহাজারী মাদ্রাসায় ভর্তি হন। সেখানে ৪ বছর অবধি উলুমে আরাবিয়ার বিভিন্ন শাস্ত্রে বুৎপত্তি অর্জন করার পাশাপাশি ১৯৬৭ ঈ,দাওরায়ে হাদিস সমাপ্ত করেন।]




★ বাঙ্গালার দেওবন্দ হাটহাজারী মাদ্রাসায় প্রথম স্থান অধিকার ও দেশব্যাপী সুনাম অর্জন-হাটহাজারী মাদ্রাসায় তাকমিল বর্ষে সমগ্র দেশের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত বার্ষিক পরীক্ষায় সম্মিলিত মেধাতালিকায় ১ম স্থান অধিকার করে সিলেটবাসীর মুখ উজ্জ্বল করেন।
হাটহাজারী মাদ্রাসায় কিতাব প্রতি প্রাপ্য
৫০ নম্বরের মধ্যে
সহিহ বুখারী,৪৮,
সহিহ মুসলিম,৫১,
জামে তিরমিযি,৫০,
সুনানে আবু দাউদ,৫২,
মুআত্তা মালিক,৫১,
মুআত্তা মুহাম্মদ,৪৮,
নম্বর অর্জন করে তদানীন্তন কালের নজিরবিহীন কৃতিত্বের স্বাক্ষর বহন করতে সক্ষম হন।
★যুগশ্রেষ্ঠ উস্তাদ মন্ডলি-তাঁর অন্যতম উস্তাদদের মধ্যে দারুল উলুম কানাইঘাটে,
*আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরি,
*মাও. মুজাম্মিল বায়মপুরি,
*মাও. শহরুল্লাহ চটি,
*মাও. শফিকুল হক আকুনি,
*মাও.ফয়েজুলবারি মহেশপুরি,




রানাপিং মাদ্রাসায়,
*মাও. রিয়াসত আলি চৌঘরি,
*মাও. তাহির আলী তইপুরি,
দারুল উলুম হাটহাজারীতে,
*মাও. আব্দুল কাইয়ুম,
*মাও. আব্দুল আজিজ,
*মাও. আবুল হাসান,
*মাও. হামিদ,
*মাও. মুহাম্মদ আলি,




প্রমুখ যুগশ্রেষ্ঠ উলামায়ে কেরামের নিকট থেকে ওহি বিজ্ঞান অধ্যয়ন করে
বিভাগীয় সিলেটে অনন্য বৈশিষ্ট্যের অধিকার লাভ করেন।

কর্ম ও কৃতিত্ব:
শিক্ষকতা-শিক্ষাজীবন সমাপ্ত হওয়ার পর ই তাঁর সোনালী কর্মজীবনের সূচনা হয়। প্রথমেই১৯৬৯ ঈ, সুনামগঞ্জ দরগাহপুর মাদ্রাসায় শিক্ষকতার মাধ্যমে। সেখানে তিনি ৪ বছর যাবত দক্ষতা ও সুনামের সহিত হাদিস শাস্ত্রের বিভিন্ন কিতাবাদির অধ্যাপনা করেন।




★আরিফ বিল্লাহ আকবর আলি থেকে শায়েখুল হাদিস গাছবাড়ি-তিনি দৃষ্টি কাড়তে সক্ষম হন জামেয়া কাসিমুল উলুম দরগাহ মাদ্রাসার সুনামধন্য মুহতামিম আরিফ বিল্লাহ হযরত মাওলানা আকবর আলি রাহ.র। আর তাই ১৯৭৩ সালে ইমাম সাহেবের আহ্বানে সাড়া দিয়ে প্রথমে জামেয়া কাসিমুল উলুম দরগার শিক্ষকতার পদ অলংকৃত করেন।
তখন থেকে আজ ২০২১ সাল অবধি সুদীর্ঘ ৪৮ বছর যাবত সময় সময় একজন যোগ্যতাসম্পন্ন পারঙ্গম মুদাররিস,বিনয়ী শিক্ষক, মুহাদ্দিস, মুফতি,শায়খুল হাদিস হিসাবে অবিচ্ছিন্ন খেদমতের দ্বারা নিজ কর্মের উজ্জ্বল সাক্ষর অব্যাহত রেখে যাচ্ছেন।

★বড় মাদ্রাসার মুহতামিম, মুফতি,শায়েখুল হাদিস-অবশেষে হযরত মাওলানা আবুল কালাম জাকারিয়া রাহ,র মৃত্যুর পর ২০১৯ সাল
থেকে সিলেটের শীর্ষস্থানীয় ইসলামী বিদ্যাপীঠ জামেয়া কাসিমুল উলুম দরগাহর মুহতামিমের আসন অলংকৃত করেন। ফলে এখন তিনি একাধারে জামেয়ার শাইখুল হাদিস, প্রধান মুফতি ও মুহতামিম হিসাবে একসঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ তিনটি পদে সমাসীন থেকে আরেকটি বৈশিষ্ট্যময় কর্মের অধিকারী হোন।




★বিনয় ও মার্জিত চরিত্র-বর্তমান এই ফিৎনার যুগে শহরের সেরা মাদ্রাসায় প্রায় অর্ধ শতাব্দীকাল অতিবাহিত করতে পারা বস্তুত তাঁর
অধ্যাপনার পারদর্শিতার পাশাপাশি বিনয়, মার্জিত চরিত্র,নিষ্ঠা ও বিচক্ষণতার প্রমাণ বহন করে নিঃসন্দেহে।
★এদারার ঐতিহ্যের সাথে যার স্মৃতি অম্লান-আযাদ দ্বীনী এদারার নাযিমে তা’মির [এমারত বিভাগীয় প্রধান] থাকাকালীন তিরিশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সোবহানিঘাটস্থ ছয়তলা বিশিষ্ট এদারাভবন নির্মাণের কীর্তির অধিকারী তিনিই। তাঁর বিচক্ষণতা ও সুবিবেচনায় নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে একঝাঁক বিজ্ঞ আলেমদের পরামর্শ ও সহায়তায় তদীয় মুর্শিদে কামিল,সদরে এদারা খলিফায়ে মাদানী, হাফিজ আব্দুল করিম শায়েখে কৌড়িয়া রাহ,র লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নে সক্ষম হয়েছেন তিনি।




★মজলিসে শুরা ও
সাংগঠনিক নেতৃত্বে যেমন-সিলেট জেলার অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মজলিসে শূরার সভাপতিত্বের আসন ছাড়াও বর্তমানে তিনি
০১,সিলেটের প্রাচীন শিক্ষাবোর্ড আযাদ দ্বীনী এদারার সিনিয়র সহ-সভাপতি,
০২,পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক,
০৩,সরকার কর্তৃক অনুমোদিত কৌমি মাদ্রাসার কেন্দ্রীয় শিক্ষাবোর্ড আল হাইআতুল উলয়ার সহ-সভাপতি ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কমিটির সদস্য,
০৪,হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেট জেলার শ্রদ্ধাস্পদ সভাপতি,
০৫,খাদিমুল কুরআন পরিষদের সভাপতি,
০৬,সিলেট জেলা উলামা কমিটির চেয়ারম্যান,
০৭,সিলেট জেলা ফতোয়াবোর্ডের চেয়ারম্যান,
সহ আরো অনেক দ্বীনী ও সামাজিক সংগঠন, সংস্থার মূল নেতৃত্বে সমাসীন থেকে ইসলামের ধর্মীয় ও সামাজিক খেদমতে অসামান্য অবদান রেখে যাচ্ছেন।




★সমাজ ও রাজনীতি:
গাছবাড়ি হুজুরের মেধাভান্ডারে মহান আল্লাহ তায়ালা বিচারিক কার্যক্রম সম্পাদনার মহতি দক্ষতা আমানত রেখেছেন। ফলে নিজ এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানের সৃষ্ট নানাবিদ সমস্যা সমাধানে তার ভূমিকা প্রশংসনীয়।
রাজনীতিতে তার সক্রিয়তা না থাকলেও আসলাফ আকাবিরের শতবর্ষী ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের
কর্মকাণ্ডের প্রতি সর্বদাই অব্যাহত রয়েছে তার শক্তিশালী সমর্থন। দেশের জমিয়ত প্রেমি উলামায়ে কেরামের ভালোবাসায় সিক্ত তার বর্ণাঢ্য জীবন।




★আধ্যাত্মিকতা ও তাযকিয়া-কালের বিবর্তনে গাছবাড়ি হুজুর এখন সিলেটের বিভিন্ন মাদ্রাসার অনুষ্ঠানসমূহের বয়ান ও দোয়ার আকর্ষণ।
বুখারি খতমের দোয়া যেন এখন তার অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে। এক্ষেত্রে তিনি এখন শায়েখে কৌড়িয়ার সফল উত্তরসূরি।
সুলুক ও মুজাহাদার ক্ষেত্রে তিনি কুতুবুল আলম শায়খুল ইসলাম সায়্যিদ হোসাইন আহমদ মাদানী রাহ,র বাংলাদেশেস্থ অন্যতম খলিফা হযরত শায়েখে কৌড়িয়ার নিকট বাইআত গ্রহণ করেন। অল্প দিনের মুজাহাদার পর শায়েখে কৌড়িয়া তাঁকে খেলাফত ও ইজাযতের পদভারে গৌরবান্বিত করেন।




★প্রাতিষ্ঠানিক দায়িত্ব-
বর্তমানে দরগাহ মাদ্রাসা ছাড়াও তিনি বেশকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অবিচ্ছিন্নভাবে অতপ্রোত জড়িত আছেন।
তন্মধ্যে
*গাছবাড়ি মাযাহিরুল উলূম কৌমি মাদ্রাসা আকুনি,
*জামেয়া আয়েশা সিদ্দিকা রা, দারুল হাদিস জাহানপুর বালিকা মাদ্রাসা,
*খাইরুল উলুম খাদিমনগর,
* তাহফিজুল কোরআন, শ্যামলি, ইসলামপুর,
*বুরহান উদ্দিন মাদ্রাসা, কুশিঘাট,
* জামেয়া মুতলিব খায়রুন, পারকুল, রাজাগঞ্জ, অন্যতম।
এছাড়াও শাহপরান আবাসিক এলাকা জামে মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা মুতাওয়াল্লির দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।




★এককথায় তিনি তদীয় কর্মগুণে বর্তমানে সিলেট জেলার আলেমদের অবিতর্কিত অবিসংবাদিত আলেম সম্রাট হিসাবে খ্যাতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।
তাঁর বর্ণাঢ্য জীবন কীর্তিময়, বৈশিষ্ট্যময় ও ঈর্ষণীয়।




মহান আল্লাহ তায়ালা হুজুরের সকল দ্বীনি খেদমাত কবুল করুন, হায়াতে তায়্যিবাহ দান করুন, দুনিয়া আখিরাতে ইজ্জতের মাকাম দান করুন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
copyright 2020:
Theme Customized BY MD MARUF ZAKIR