1. abutalha6256@gmail.com : abdul kadir : abdul kadir
  2. abutalha625616@gmail.com : abu talha : abu talha
  3. asadkanaighat@gmail.com : Asad Ahmed : Asad Ahmed
  4. izharehaq24@gmail.com : mzakir :
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন

সিদ্দিকে আকবর (রা.)-এর খোদাভীতি 

মোহাম্মদ শরীফ
  • প্রকাশটাইম: বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১

 

নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রিয় বন্ধু সিদ্দিকে আকবর রাযিআল্লাহু আনহু এর একটি গোলাম ছিল। সে প্রতিদিন কাজ কর্ম করে খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহ করে নিয়ে আসতো। এরই ধারাবাহিকতায় একদিন সে কিছু খাদ্য সিদ্দিকে আকবর রাযি. এর নিকট নিয়ে আসলো। তিনি অত্যান্ত ক্ষুধার্ত অবস্থায় ছিলেন। তাই কোনরূপ কালক্ষেপণ না করেই উক্ত খাবার থেকে এক লোকমা খেয়ে ফেললেন। খাওয়ার পর সে সিদ্দিকে আকবর (রা.)-কে বললো , যখনই কোনো খাবার সামগ্রী আপনার নিকট নিয়ে আসি, তখন আপনি তো অবশ্যই জিজ্ঞাসা করেন যে ,এই খাবার কোথা হতে এসেছে।


হযরত আবু বকর (রা.) তার দিকে দৃষ্টিপাত করে বললেন, আজ আমার প্রচণ্ড খিদে পেয়েছিল, তাই জিজ্ঞেস করা ব্যতীত‌ই খেয়ে ফেলেছি। এবার বলো তুমি এ খাবার কোথা হতে এনেছ ? গোলাম বলল আমি জাহেলিয়াতের যুগে এক ব্যক্তির ব্যাপারে ভবিষ্যৎবাণী করেছিলাম। বস্তুতঃগণকবিদ্যা আমার তেমন ভালো করে জানা ছিল না । কিন্তু সে আমাকে জিজ্ঞেস করায় আমি তাকে ধোঁকা দিয়েছিলাম । আজ পথিমধ্যে ওই ব্যক্তির সঙ্গে আমার সাক্ষাত হয়েছে , সে আমাকে উহার বিনিময় ও উপহারস্বরূপ এই খাদ্য দিয়েছে। সিদ্দিকে আকবর রাযিআল্লাহু তা’আলা আনহু খুব রাগান্বিত হয়ে বললেন, আমাকে তো তুমি ধ্বংসই করে দিয়েছো ! অতঃপর তিনি নিজ হাত গলায় প্রবেশ করে বমি করার চেষ্টা করলেন ।



কিন্তু খিদের তুলনায় খাবার খুবই অল্প ছিল। তাই বারবার চেষ্টা করার পরও বমি করতে পারছিলেন না । কেউ পরামর্শ দিলো যে , হে ইবনে কুহাফা (রা.) অল্প কিছু পানি পান করুন।



যাতে পেট ভরে ওঠে এবং আহার কৃত খাবার বের হয়ে আসে। অতঃপর তিনি কিছু পানি পান করে বমি করার চেষ্টা করলে তাঁর উদর থেকে ভোগকৃত খাদ্য বের হয়ে আসে । পরে তিনি আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে বলেন,এই এক লুকমা খাদ্য বের করার জন্য যদি মরেও যেতাম, তবুও বের করেই ছাড়তাম। উপস্থিত দর্শকদের মধ্য থেকে একজন জিজ্ঞাসা করল যে, এক গ্রাস খাদ্যের জন্য এই পরিমান কষ্ট করলেন এবং পেটের সমস্ত খাদ্য বের করে ফেললেন ! সিদ্দিকে আকবর (রা.) তাদেরকে বললেন , যে দেহ হারাম খাদ্য দ্বারা লালিত -পালিত হবে, জাহান্নামের অগ্নিই তার অধিক হকদার। তাই আমার ভয় হলো এই এক লুকমা খাবার দ্বারা যেন আমার দেহের কোন অংশ বৃদ্ধি না হয়, প্রতিপালিত না হয়। প্রিয় পাঠক,উম্মতে মুহাম্মদীর সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যক্তি হযরত আবু বকর (রা.) তিনি বদরী সাহাবীদের মধ্য থেকে অন্যতম । যাঁর উপর আল্লাহ সন্তুষ্ট হয়ে তার কৃত গুনাহসমূহকে মাফ করে দিয়েছেন ! দুনিয়ায় থাকা অবস্থায় যিঁনি জান্নাতের সার্টিফিকেট পেয়েছেন । এক লুকমা খাদ্যের জন্য এই যদি হয় তাঁর অবস্থা,তাহলে আমাদের ব্যাপারে কি আর বলার অপেক্ষা রাখে ? আল্লাহ আমাদের সকলকে তাকওয়াবান ও পরহেজগার হওয়ার তাওফীক দিন। আমীন।

লেখক: শিক্ষার্থী,আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া হামিউসসুন্নাহ মেখল।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
copyright 2020:
Theme Customized BY MD MARUF ZAKIR